সোনিয়া বশির কবির ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এসএসসি এবং এইচএসসি পাশ করে  চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে তিনি ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি এবং শান্তা ক্লারা ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনা করেন। এমবিএ শেষ করার পর তিনি সিলিকন ভ্যালিতে ফরচুন হান্ড্রেড (সান মাইক্রো সিস্টেম এন্ড ওরাকল) এ কর্মরত ছিলেন।

 

তিনি ২০১৪ সালের জুন মাসে মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পান। আজ তিনি বাংলাদেশের পাশাপাশি মাইক্রোসফট  নেপাল, ভুটান এবং লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পেলেন।

 

সোনিয়া বশির কবির সোনিয়া বশির কবির

 

লোকবল, তথ্য ও পদ্ধতিকে একত্রীকরণের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য মান উন্নয়ন ও ডিজিটাল জগতে প্রতিযোগীতায় এগিয়ে থাকা ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনের মূল লক্ষ্য। তিনি এই চারটি দেশে মাইক্রোসফটের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনের লক্ষ্যপূরণ সংক্রান্ত ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত নেবেন।

 

প্রতিটি মানুষ ও প্রতিষ্ঠানগুলো যেনো ইন্টেলিজেন্ট ক্লাউড ও ইন্টেলিজেন্ট নতুন প্রান্তের সুযোগ গ্রহণ করতে পারে সে বিষয় নিয়ে তিনি কাজ করবেন।

 

সোনিয়া বশির কবির সোনিয়া বশির কবির

 

তিনি মাইক্রোসফটের পাশাপাশি জাতিসংঘের আওতাভুক্ত টেকনোলজি ব্যাংক ফর লিস্ট ডেভেলপড কান্ট্রিজের গভর্নিং কাউন্সিল মেম্বার হিসেবে কাজ করছেন। তিনি ২০১৬ সালে মাইক্রোসফট ফাউন্ডার্স এওয়ার্ড পুরস্কার অর্জন করেন । এছাড়া জাতিসংঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলি সপ্তাহে সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) সংক্রান্ত সেরা দশ পথিকৃতের একজন হিসেবে সোনিয়া বশির কবিরকে স্বীকৃতি দিয়েছে ইউএন গ্লোবাল কমপ্যাক্ট।

সোনিয়া বশির কবিরের জন্য শুভ কামনা।