একটা পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেট ম্যাচে, সবার গেম প্ল্যান একরকম হয়না...
.
কারও প্ল্যান থাকে ৩০০-৩৫০ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাটিং করতে নামা, কারও প্ল্যান থাকে, টিকে থেকে ২০০ কিংবা ২৫০ রান করা।
কারও প্ল্যান থাকে ৩৫-৪০ ওভারেই ম্যাচ জিতে যাওয়া, কারও প্ল্যান থাকে পঞ্চাশতম ওভার পর্যন্ত চেষ্টা করে যাওয়া... কেও আবার “সম্মানজনক হার” পেলেই তৃপ্ত থাকে...

.
জীবনটাও এই ৫০ ওভারের ক্রিকেট ম্যাচের মতই...
.
৩৫০ রান কেও টার্গেট করলে প্রতি ওভারে রান রেটের যেমন চাপ থাকে, প্রতিটা বল যেমন হিসেব করতে হয়... ৫০-৬০ বছরের জীবনেও ঠিক তেমনিভাবে প্রতিটা দিনের হিসেব আছে।  যে নিজেকে যেখানে দেখতে চায়, সেই অনুযায়ী ওভার প্রতি রান রেটের মত তার প্রতিদিনের কাজ-রেটও ঠিক করে নিতে হয়।

 

এক্ষেত্রে একেকজনের দৃষ্টিভঙ্গি, স্বপ্ন একেকরকম...
.
কারও কাছে ১১ জনের স্কোয়াডে থাকতে পারার নামই সার্থকতা, কারও কাছে ৫০ রান করতে পারাতেই তৃপ্তি, কারও কাছে আবার বিরাট কোহলি, ভিলিয়ার্সের মত নিজেকেই নিজে ছাড়িয়ে যাবার নাম সার্থকতা...
.
কেও শুধু ভালো ব্যাটসম্যান হতে চায়, কেও আবার ব্যাটিং-এর পাশাপাশি পার্ট-টাইম বোলিংটাতেও মনোযোগ দিতে চায়, ফিল্ডিংটাতেও উন্নতি করতে চায়...
.
পুরোটাই স্বদিচ্ছার ব্যাপার...
যে নিজেকে যেভাবে দেখতে পছন্দ করে সে সেভাবেই তার পরিচর্যা করবে...
.
এভারেজ সংকল্প, এভারেজ প্রচেস্টা, এভারেজ অনুশীলন দিয়ে জীবন নামের ম্যাচে "এভারেজ আসলাম" হওয়া যেতে পারে...
বিরাট কোহলির মত হতে গেলে সংকল্প, প্রচেস্টা আর অনুশীলনের পরিমাণটাও "বিরাট' হতে হয়..